শিক্ষা

স্বপ্নের ১৩ আলামত দেখলে বুঝবেন আপনি সুখি এবং ধনী  হতে চলেছেন

স্বপ্নের ব্যাখ্যা! আমাদের প্রত্যেকের জীবনে সুসময় আশার আগে এর কিছু আলামত আপনি দেখতে পাবেন। এবং এই আলামত গুলো প্রকাশ পাবে আপনার ঘুমের ঘরে স্বপ্নের মাধ্যমে।

স্বপ্নের ব্যাখ্যা

আজকের আলোচনায় আমি এরকমই ১৩ টি আলামতের কথা বলবো যদি স্বপ্নের মধ্যে এরকম ১৩ টি আলামত দেখতে পান তাহলে মনে করবেন আপনার সামনের সময়টি অনেক অনেক অনেক ভালো আসতে যাচ্ছে । আপনার কষ্টের সময় শেষ হতে চলেছে এবং সামনে একটি প্রশান্তিময় এবং উজ্জল ভবিষ্যৎ আসতে চলেছে। প্রিয় বন্ধুরা এটা কারো মনগড়া কথা নয়। এটি বলেছে বিখ্যাত আলেমে দিন ও স্বপ্ন বিশারদ আল্লামা শিরিন রাহিমাওল্লাহি আলাইহির কথা । তার জগৎ বিখ্যাত গ্রন্থ খাব নামা থেকে আজ আমরা ১৩ টি লক্ষণ সম্পর্কে জানবো যেগুলো দারা প্রকাশ পায় যে আপনার সময় ভালো আসতে যাচ্ছে।

আল্লাহর রাসূল (সঃ) বলেছে যে, স্বপ্ন হচ্ছে নবুয়তের ৪৬ ভাগের ১ ভাগ। নবুয়ত বন্ধ হয়ে গিয়েছে কিন্ত স্বপ্নের দরজাটি চালু রয়েছে । যারা মুমিন মুসলমান তাদের কে বিভিন্ন রকম আকার ইঙ্গিত দিয়ে বুঝানো হয় যে তুমি এই জিনিস থেকে সাবধান হয়ে যাও বা এ জিনিস গুলো অতি দ্রুত পেতে যাচ্ছ। এ ক্ষেত্রে যারা চিন্তার খোরাক রাখে তারাই শুধু মাত্র সাবধান হতে পারে।

কথা না বারিয়ে চলুন জেনে নেই ১৩ টি স্বপ্নের কথা,…

১/ আপনি যদি স্বপ্নে দেখেন যে আপনি কন্যা সন্তানের বাবা হয়েছে তাহলে বুঝে নিবেন যে আপনার জীবনে সুখ শান্তি ও ব্যবসার উন্নতি এক কথায় সার্বিক ভাবে আপনার জীবনের পরিবর্তন হতে যাচ্ছে।

২/ আপনি যদি স্বপ্নে ঘরে নবি (সঃ) কে দেখেন তাহলে রাসুল বলেছেন আপনি অবশ্যই মুহাম্মাদুর রাসূলুল্লাহ (সঃ) কেই দেখেছেন। কেননা আল্লাহ্‌র রাসুলের সুরতে কেউ আপনাকে ধোঁকা দিতে পারবেনা এমন কি শয়তানও পারবেনা এই ক্ষমতা পৃথিবীর কাউকেই দেওয়া হয়নি।

৩/ স্বপ্নে আপনি যদি কোন আলেমকে হাসি খুসি দেখেন তাহলে সেটা অবশ্যই আপনার জন্যে মঙ্গোল বয়ে নিয়ে আসবে।

৪/ স্বপ্নে যদি আপনি সুন্দর কোন গরু দেখতে পান তিনি নারি হোক অথবা পুরুষ হোক তাহলে বুঝে নিবেন আপনার জীবনে একটা উত্তম জীবন সঙ্গি অথবা সঙ্গিনি পেতে জাচ্ছেন। সে ক্ষেত্রে পুরুষ হলে দিনদার স্ত্রী এবং নারি হলে দিনদার স্বামী।

৫/ আপনি যদি স্বপ্নে এমনটা দেখেন যে আপনি ক্বাবা শরিফ তাওয়াফ করছেন অথবা যদি আপনি স্বাভাবিক ভাবে ক্বাবা শরিফ দেখেন । তাহলে নিঃসন্দেহে সে সে ব্যক্তি অত্যন্ত সৌভাগ্যবান এবং খুব তারাতারি তার ভালো সময় আসতে যাচ্ছে।

৬/ যদি আপনি স্বপ্নে নামাজের ইমামতি করতে দেখেন তাহলে বুঝেনিবেন আপনি সমাজের নেতৃত্ব পেতে যাচ্ছেন। আর আপনি একজন অনেক সন্মানের ব্যাক্তিতে রূপান্তরিত হতে যাচ্ছেন।

৭/ যদি আপনি স্বপ্নে স্বাভাবিক ভাবে নামাজ পরতে দেখেন অর্থাৎ বসে বা শুয়ে নয় (একদম স্বাভাবিক ভাবে)। এর অর্থ হচ্ছে আপনার জীবন পরিবর্তন হতে যাচ্ছে।

৮/ স্বপ্নে যদি আপনি অধিক কান্নাকাটি করতে দেখেনে তাহলে মনে করবেন আপনার জন্যে অবশই ভালো সময় অপেক্ষা করছে। আল্লাহ্‌ পাক অতি দ্রুত আপনার অবস্থান পরিবর্তন করতে যাচ্ছে। সেটা অর্থনৈতিক ভাবে হওয়ার সম্ভাবনা খুব বেশি।

৯/ স্বপ্নে যদি আপনি কোরআন পরতে দেখেন তাহলে সেটি আপনার জন্যে খুবি ভালো একটা স্বপ্ন। এর অর্থ হচ্ছে আপনি খুব দ্রুতই আপনার মনের আশা পুরন করতে পারবেন।

১০/ স্বপ্নে আপনি যদি চাঁদ দেখেন তাহলে সেটা খুবি ভালো একটা স্বপ্ন। স্বপ্ন বিশারদগণ বলেন । স্বপ্নে চাঁদ দেখার অন্য তম একটা কারন হচ্ছে। আপনি আপনার জীবনে সুখ শান্তি ও আরাম আয়েশ পেতে যাচ্ছেন।

১১/ স্বপ্নে যদি আপনি দেশের রাষ্ট্রপতি কিংবা প্রধানমন্ত্রীকে দেখেন অথবা কোন দেশের রাজা, বাদসা এমন কাউকে দেখেন তাহলে বুঝবেন আপনার পদোন্নতি ঘটবে এবং সার্বিক কল্যাণ আসতে চলেছে। আর যদি তাদের কে হাসতে দেখেন  তাহলে সেটা আপনার জন্যে আরেকটি ভালো স্বপ্ন।

১২/ স্বপ্নে আপনি যদি জমজমের পানি পান করতে দেখেন তাহলে সার্বিক ভাবে আপনার উন্নতি হতে যাচ্ছে। আর সেটা অর্থনৈতিক ভাবে কিংবা শারীরিক ভাবেও হতে পারে।

১৩/ স্বপ্নে আপনি যদি সূর্য দেখেন তাহলে বুঝে নিবেন আল্লাহ্‌ পাক আপনার জন্যে সামনে সুদিন রেখেছে। আপনার জন্যে খুব ভালো সময় অপেক্ষা করছে। অর্থাৎ এত পরিমাণে আপনার সম্পত বেড়ে যাবে যাদেখে আপনিই অবাক হবেন।

আমরা যারা খোদা ভিরু এবং আল্লাহ্‌র সকল বিষয়ে বিশ্বাসী তারাই শুধু এই ১৩ টি স্বপ্নের মাধ্যমে দুনিয়াতে এবং পরপারে সুখ শান্তি পেতে পারি।

তো বন্ধরা আজকের পোস্টটি এখনেই শেষ করছি। এরকম ইসলামিক পোস্ট পেতে এবং ইসলামের সকল জানা অজানা বিষয়ে জানতে আমাদের পেজের সঙ্গেই থাকুন।

Related Articles

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।