তথ্য ও প্রযুক্তি

Google Pixel 6a Price in Bangladesh 2023 & Full Specifications

শীঘ্রই লঞ্চ হতে চলেছে গুগল পিক্সেল ৬এ ফোনটি। তার আগেই আপনার জেনে নেওয়া উচিৎ, এই ফোনে কী কী ফিচার্স ও স্পেসিফিকেশনস থাকতে পারে।

Google Pixel 6a

দীর্ঘ অপেক্ষার পর এবার গুগল তার Pixel 6A ফোনটি লঞ্চ করতে পারে বলে মনে করা হচ্ছে। কোম্পানিটি তার বার্ষিক Google I/O ইভেন্ট হোস্ট করতে চলেছে, যা ১১ মে থেকে শুরু হবে। এই ইভেন্টে গুগল তার প্রথম পিক্সেল স্মার্টওয়াচও প্রদর্শন করতে পারে। সেই সঙ্গেই আবার লঞ্চ হতে পারে Google Pixel 6A। কারণ, ডিভাইসটির চারটি মডেল সম্প্রতি FCC সার্টিফিকেশন সাইটে দেখা গিয়েছে। আর একবার সার্টিফিকেশন সাইটে চলে আসা মানে, সব কিছু তৈরি, ফোন লঞ্চ শুধু মাত্র সময়ের অপেক্ষা।

গত বছর জুলাই মাসে গুজব রটে যে, Google Pixel 6A ফোনটি লঞ্চ করবে। সঙ্গে এ-ও জানা যায়, এটিই হতে চলেছে সবথেকে সস্তার পিক্সেল ফোন। সেই অপেক্ষারই এবার অবসান হতে চলেছে। যদিও Google Pixel 6A ভারতের বাজারে লঞ্চ করবে কি না, সে বিষয়ে নিশ্চিত তথ্য এখনও পর্যন্ত জানা যায়নি। কারণ, ভারতে এখনও পর্যন্ত Pixel 5A লঞ্চ করেনি। ২০২১ সালেই সেই ফোনটি ভারতে লঞ্চ করার কথা ছিল। কিন্তু তার পরিবর্তে ভারতে লঞ্চ হয় Pixel 4a। সেখান থেকেই মনে করা হচ্ছে, আপাতত ভারতে Pixel 6A লঞ্চ হওয়ার সম্ভাবনা খুবই কম। আগে Pixel 5A লঞ্চ হবে। তারপরই দেশে আসবে Pixel 6A।

Google Pixel 6a: কী আশা করা যায়?

Google Pixel 6A ফোনটি আসলে Pixel 6 সিরিজের অন্যান্য ফোনগুলির মতোই ডিজ়াইন অফার করতে পারে বলে মনে করা হচ্ছে। থাকবে একটি পাঞ্চ-হোল ডিজাইনের ফ্ল্যাট ডিসপ্লে, যা আমরা আজকাল বেশির ভাগ স্মার্টফোনেই দেখতে পাই। যদিও গুগল এই ফোনে 3.5 মিমি হেডফোন জ্যাক বাদ দেবে না রাখবে সেই বিষয়টিও এখনও পর্যন্ত পরিষ্কার নয়। Pixel 5A একটি অডিও জ্যাক অফার করে। তাই নতুনটিতেও এটি থাকতে পারে। যদি গুজব এবং ফাঁস বিশ্বাস করা হয়, Pixel 6A একই টেনসর চিপ প্যাক করবে যা উচ্চ-সম্পন্ন এবং এই স্মার্টফোনকে শক্তি দেওয়ার কাজটি নিশ্চিত করবে।

এটি একটি সাধারণ 6.2-ইঞ্চি OLED ডিসপ্লে সহ আসতে পারে যা সম্ভবত ফুল HD+ রেজোলিউশনে চলবে। প্যানেলটি মসৃণ রূপান্তরের জন্য 90Hz রিফ্রেশ রেট সাপোর্ট করবে বলে আশা করা হচ্ছে। এটি সম্ভবত লেটেস্ট Android 12-র বাইরে পাঠানো হবে। ফটোগ্রাফির জন্য একটি 12-মেগাপিক্সেল Sony IMX363 প্রাথমিক সেন্সর এবং একটি 12.2 মেগাপিক্সেল আল্ট্রা-ওয়াইড-অ্যাঙ্গেল ক্যামেরা সহ একটি ডুয়াল রিয়ার ক্যামেরা সেটআপ দেওয়া হতে পারে ফোনটিতে। সেলফি এবং ভিডিয়ো কলিংয়ের জন্য দেওয়া হতে পারে একটি 8-মেগাপিক্সেল সেন্সর থাকতে পারে।

Pixel 6a ফোনে অত্যন্ত শক্তিশালী একটি 4,500mAh ব্যাটারি থাকতে পারে, যা বেশির ভাগ ওয়ানপ্লাস ফোনের ব্যাটারি। যদিও প্রতিযোগিতাটি বর্তমানে 65W দ্রুত চার্জিংয়ের জন্য সমর্থন করছে। Pixel 6a ফোনটি 20W-এর বেশি দ্রুত চার্জিং সাপোর্ট করবে বলেই অনুমান করা হচ্ছে। আর তাই যদি হয়, তাহলে আসন্ন পিক্সেল ফোনটি কিছু ব্যবহারকারীকে হতাশ করতে পারে। কারণ, বাজারে এমন অনেক ফোন এসে গিয়েছে, যারা 150W পর্যন্ত ফাস্ট চার্জ সাপোর্ট করে।

Moto Edge 30: এই দিন বিশ্বের সবথেকে হালকা ও পাতলা 5G ফোন ভারতে নিয়ে আসছে মোটোরোলা

১২ মে ভারতে লঞ্চ হতে পারে মোটো এজ ৩০ ফোনটি। সংস্থাটি দাবি করছে, ভারতের সবথেকে পাতলা এবং হালকা ফোন হতে চলেছে এটিই। কী কী ফিচার্স থাকতে পারে।

দেশে একের পর এক নতুন স্মার্টফোন নিয়ে আসছে মোটোরোলা (Motorola)। জি সিরিজ়ের একাধিক ফোন লঞ্চের পর এবার মোটো এজ ৩০ (Moto Edge 30) ফোনটি ভারতে লঞ্চ করতে চলেছে। মোটো এজ ৩০ ফোনটি আসলে এজ ৩০ প্রো মডেলের টোনড ডাউন ভার্সন, যা কয়েক দিন আগেই লঞ্চ হয়েছিল। পারফরম্যান্সের জন্য মোটো এজ ৩০ ফোনে থাকছে একটি স্ন্যাপড্রাগন ৭৭৮প্লাস (Snapdragon 778+) প্রসেসর। একটি ১৪৪ হার্ৎজ় রিফ্রেশ রেটের ডিসপ্লে দেওয়া হচ্ছে। অত্যন্ত শক্তিশালী একটি ৪০২০এমএএইচ ব্যাটারি রয়েছে ফোনটিতে। সংস্থার তরফ থেকে জানানো হয়েছে, মোটো এজ৩০ প্রো ফোনটি মিড-রেঞ্জ সেগমেন্টে এই মুহূর্তের সবথেকে হালকা এবং পাতলা ফোন।

টিপস্টার মুকুল শর্মা নিশ্চিত বার্তা দিয়েছেন যে, ১২ মে মোটোরোলা এজ ৩০ ফোনটি ভারতে লঞ্চ করতে চলেছে। ট্যুইটারে তিনি লিখেছেন, “আমি নিশ্চিত করে জানাতে পারি যে, ১২ মে মোটোরোলা এজ ৩০ ফোনটি লঞ্চ করছে। এটি বিশ্বের সবথেকে পাতলা এবং হালকা ৫জি স্মার্টফোন, যাতে স্ন্যাপড্রাগন ৭৭৮প্লাস ৫জি প্রসেসর রয়েছে।” প্রসঙ্গত, কয়েক দিন আগেই ভারতের বাজারে আরও একটি হালকা ও পাতলা ফোন নিয়ে এসেছে, যার নাম মোটো জি৫২।

এদিকে আবার মোটোরোলা এজ ৩০ ফোনটি কয়েক দিন আগেই ইউরোপিয়ান মার্কেটে লঞ্চ করা হয়েছে। ইউরোপে লঞ্চ হওয়া সেই ভ্যারিয়েন্টে রয়েছে একটি ৬.৫ ইঞ্চির এফএইচডি প্লাস অ্যামোলেড ডিসপ্লে যা ১৪৪ হার্ৎজ় রিফ্রেশ রেট সাপোর্ট করে। পারফরম্যান্সের দিক থেকে ফোনটি চালিত হচ্ছে একটি অক্টা-কোর কোয়ালকম স্ন্যাপড্রাগন ৭৭৮জিপ্লাস প্রসেসরের সাহায্যে। এই প্রসেসর পেয়ার করা থাকছে ৮জিবি পর্যন্ত র্যাম এবং ২৫৬জিবি পর্যন্ত স্টোরেজের সঙ্গে।

মোটোরোলা এজ ৩০ ফোনটিতে রয়েছে একটি ট্রিপল রিয়ার ক্যামেরা সেটআপ। প্রাইমারি সেন্সর হিসেবে ফোনটিতে রয়েছে একটি ৫০ মেগাপিক্সেল মেইন ক্যামেরা। সেকেন্ডারি ক্যামেরা হিসেবে আরও একটি ৫০ মেগাপিক্সেল আলট্রা-ওয়াইড অ্যাঙ্গেল সেন্সর রয়েছে। এছাড়াও রয়েছে একটি ২ মেগাপিক্সেল ডেপথ সেন্সর। সেলফি ও ভিডিয়ো কলিংয়ের জন্য মোটো এজ ৩০ ফোনে একটি ৩২ মেগাপিক্সেল ফ্রন্ট ফেসিং সেন্সর দেওয়া হয়েছে।

Related Articles

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।