তথ্য ও প্রযুক্তি

Vivo Y35 4G সিরিজ এর দাম, ক্যামেরা, ব্যাটারি, RAM & ROM

Vivo Y35 4G স্মার্টফোনটিকে মালয়েশিয়ায় লঞ্চ করা হয়েছে নিশ্চিত করলেন ভিভো। পাশাপাশি চীনা টেক জায়ান্টটি তাদের মালয়েশিয়ার ওয়েবসাইটে আলোচ্য হ্যান্ডসেটের কয়েকটি কী-ফিচার জানানো হয়। জানানো হচ্ছে , Y-সিরিজের এই লেটেস্ট মডেলে কোয়ালকম স্ন্যাপড্রাগন ৬৮০ চিপসেট থাকতে পারে বলে ধারণা করা হচ্ছে । এটি ৮ জিবি র্যাম ও ২৫৬ জিবি স্টোরেজ সহ আসবে।

Vivo Y35 4G

হ্যান্ডসেটে ১৬ জিবি পর্যন্ত এক্সটেন্ডেড র্যামের সাপোর্টও পাওয়া যাবে।ডিভাইসে ৪৪ ওয়াট ফ্ল্যাশ চার্জিং থাকবে। টেকনোলজি সমর্থিত ৫,০০০ এমএএইচ পাওয়ারের ব্যাটারি ব্যবহার করা হবে।Vivo Y35 4G, বিদ্যমান Vivo Y33 ফোনের সাক্সেসর ভার্সন হিসাবে আত্মপ্রকাশ করবে বলে জানানো হচ্ছে। প্রসঙ্গত, এক বিখ্যাত লিকস্টার আলোচ্য ডিভাইসটির মূল্য সম্প্রতি অনলাইনে ফাঁস করেছে।

লঞ্চ হল  Vivo Y35 4G

ভিভো তাদের মালয়েশিয়ার অফিসিয়াল ওয়েবসাইটের মাধ্যমে নিশ্চিত করেছে যে, ভিভো ওয়াই ৩৫ ‘৪জি স্মার্ট ফোনটি লঞ্চ হয়েছে   ১১/০৬/০২০২২ তারিখে। এরজন্য একটি ভার্চুয়াল ইভেন্টের আয়োজন করা হয়েছে । এই লঞ্চ ইভেন্টকে স্থানীয় সময় অনুসারে সন্ধ্যা ৬টা এবং ভারতীয় সময়ে দুপুর ৩:৩০টে থেকে সরাসরি সম্প্রচার করা হয়েছিল। ফোনটিতে দুই কালার বিকল্পে এগেট থাকবে এবং ডাওন গোল্ড – সংস্থা দ্বারা প্রকাশিত অফিসিয়াল লিস্টিংয়ে বলা হয়েছে।

ভিভো ওয়াই ৩৫ ৪জি সম্ভাব্য দাম (Vivo Y35 4G expected price) হতে পারে-মোবাইলস্টক (Mobilestalk) -এর সহযোগিতায়, জনপ্রিয় টিপস্টার পারাশ google (Paras Guglani) সম্প্রতি ভিভো Y35 4G স্মার্টফোনের সম্ভাব্য বিক্রয় মূল্যের ধরন প্রকাশ করেছেন অনলাইনে।লিক অনুসারে, আপকামিং ডিভাইসটির 8G র্যাম ও256 GB স্টোরেজ যুক্ত একক ভ্যারিয়েন্টের দাম ১,০৯৯ মালয়েশিয়ান রিঙ্গিত (ভারতীয় টাকায় এর মূল্য প্রায় ১৯,৩০০ টাকা) হতে পারে বলে ধারণা করা হচ্ছে ।

Vivo Y35 8G সম্ভাব্য স্পেসিফিকেশন (Vivo Y35 4G expected specifications)-ডুয়াল সিমের (ন্যানো) ভিভো vivo Y35 4G অ্যান্ড্রয়েড ১২ ভিত্তিক ফানটাচ ও এস ১২ (Funtouch OS 12) কাস্টম স্কিন দ্বারা চালিত হবে ।এতে একটি ৬.৫৮-ইঞ্চির ফুল এইচডি প্লাস (১,০৮০x২,৪০৮ পিক্সেল) LCD ডিসপ্লে দেওয়া হবে।প্রসেসর হিসাবে উক্ত স্মার্টফোনে কোয়ালকম স্ন্যাপড্রাগন ৬৮০ থাকবে। ডিভাইসটি ৮ জিবি র্যাম এবং ২৫৬ জিবি অনবোর্ড স্টোরেজ সহ আসবে। যদিও ইন-বিল্ট র্যাম এক্সপেনশন ফিচারের মাধ্যমে ইন্টারনাল স্টোরেজকে রূপান্তর করে অতিরিক্ত ভাবে আরো 16 জিবি পর্যন্ত র্যাম ব্যবহার করা যাবে বলে ভিভো।

সংস্থার অফিসিয়াল লিস্টিং অনুসারে, আপকামিং Vivo Y35 4G ফোনে ট্রিপল রিয়ার ক্যামেরা ইউনিট হবে।এই ক্যামেরাটি – 50 মেগাপিক্সেল প্রাইমারি সেন্সর এবং দুটি 2 মেগাপিক্সেল সেন্সর থাকতে পারে। এবং ডিভাইসের সামনে একটি 16মেগাপিক্সেল সেলফি ক্যামেরা হবে । Vivo Y35 4G ফোনে 📲 5,000 এমএএইচ ক্যাপাসিটির ব্যাটারি থাকবে , যেটা 44ওয়াট ফ্ল্যাশচার্জ সমর্থন করবে।

বন্ধুরা এই ছিল আজকের পোস্ট। আরেকটি নতুন পোস্টের সাথে দেখা হচ্ছে । পোস্টটি পড়ার জন্য সবাইকে ধন্যবাদ ।

Related Articles

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।